চান্দিনায় বাড়ছে কিশোর গ্যাং গ্রুপের তৎপরতা; নেতৃত্ব দিচ্ছে বড় ভাইয়েরা | Chandina Protidin

চান্দিনায় বাড়ছে কিশোর গ্যাং গ্রুপের তৎপরতা; নেতৃত্ব দিচ্ছে বড় ভাইয়েরা

সাদেক হোসেনঃ গত কয়েক বছরে চান্দিনা উপজেলায় আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে কিশোর গ্যাং গ্রুপের অপারেশনমূলক কার্যক্রম। নবম-দশম শ্রেণি পড়ুয়া ছাত্রদের টার্গেট করে গ্রুপের সদস্য বাড়াচ্ছে বড় ভাইয়েরা। আর সদর ও সদরের বাহিরে নিজেদের আধিপত্য বিস্তারের লক্ষ্যে ছোট ভাইদের অধিকতর বেপরোয়া করে গড়ে তোলা হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, চান্দিনায় প্রায় কয়েকটি কিশোর গ্যাং গ্রুপ সক্রিয়। যাদের মূল কার্যক্রম পরিচালিত হয় সদর এলাকা হতে। যে গ্রুপগুলোর নেতৃত্ব দিচ্ছেন বড় ভাইয়েরা।
সম্প্রতি উপজেলা সদরের চান্দিনা সরকারি মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়কে ঘিরে কয়েকটি গ্রুপ সৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গেছে। বিদ্যালয় এলাকায় অন্যান্য মেয়েদের উত্ত্যক্ত, মাদক সেবন এবং আধিপত্য বিস্তারই হচ্ছে তাদের মূল লক্ষ্য।
আর নিজেদের আধিপত্য বিস্তার করতে ওই গ্রুপ গুলোতে রাখা হয়েছে কলেজ পর্যায়ের ও বহিরাগত বড় ভাইদের।
আর কিশোর গ্যাং গ্রুপের এই বড় ভাইয়েরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বাহিরেও তাদের আধিপত্য জানান দিতে নানা সেটেলমেন্টের কাজ করে থাকেন। তাদের কাজই হলো সদর উপজেলাসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে সমস্যা সমাধানের সেট-আপ দেওয়া। নির্দিষ্ট কিছু এলাকায় নিজেদের আধিপত্য বিস্তারের পাশাপাশি কারোর পাওনা টাকা তুলে দেওয়া, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সৃষ্ট দ্বন্দ্বের রেশে কন্ট্রাক্টচুয়াল মারামারির কাজও নেন তারা।

বুধবার (২৮ আগস্ট) সকালে চান্দিনা সরকারি মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের জিহান গ্রুপের সাথে নাঈম গ্রুপের সংঘর্ষ হয়। এতে এক শিক্ষার্থীর মাথা ফেটে যায়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মেয়ে সংক্রান্ত একটি বিষয়কে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের মধ্যে বাক বিতন্ডা হয়। বুধবার সকালে নাঈম গ্রুপের ছেলেরা বিদ্যালয় গেইটে ঢুকতেই হামলা করে জিহান গ্রুপের সদস্যরা। তার কয়েক মিনিট পর নাঈম গ্রুপের সদস্যরা সংঘবদ্ধ হয়ে জিহান গ্রুপের উপর হামলা করে। এতে জিহান গ্রুপের সদস্য ওই বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীর ছাত্র কামরুল হাসান মাহফুজ এর মাথা ফেটে যায়। তাকে দ্রুত উদ্ধার করে চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ওই বিদ্যালয়টিতে রাব্বি গ্রুপ নামে আরেকটি গ্রুপ রয়েছে। স্টুডেন্ড কেবিনেট নির্বাচনের প্রতিনিধি রাব্বি বিদ্যালয়ের ৮ম থেকে ১০ম শ্রেণীর বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থীদের নিয়ে ওই গ্রুপ পরিচালনা করে আসছে। এছাড়া আরও কয়েকটি গ্রুপ রয়েছে বলে জানান বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষার্থীরা।

এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক এমদাদুল হক জানান, বিদ্যালয়ে কিশোর গ্যাং গ্রুপ সৃষ্টি হয়েছে তা আমার জানা ছিল না। আজ যেহেতু বিষয়টি উঠে এসেছে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। এছাড়া হামলার ঘটনায় ৫ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে চান্দিনা থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মো. আবুল ফয়সল জানান, বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখবো। যদি কোন কিশোর গ্যাং গ্রুপ থেকে থাকে তাহলে সেই সব গ্যাং গ্রুপের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Ajker-Comilla

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
চান্দিনা প্রতিদিন ২০১৬-২০১৯

প্রধান সম্পাদক: সাইফুদ্দিন বাপ্পী, নির্বাহী সম্পাদক: সাদেক হোসেন, মোবাইল-০১৬৮১-৯৩৯৭৩৫
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়- চান্দিনা হাইস্কুল মার্কেট (২য় তলা), চান্দিনা থানা রোড, কুমিল্লা।
Email- news.chandinapratidin@gmail.com